ও মাঝি
প্রকাশিত: অক্টোবর ৪, ২০১৮
লেখকঃ

 112 বার দেখা হয়েছে

এই লেখক এর আরও লেখা পড়ুনঃ

সাইফুল ইসলাম জীবন

ও তরীর মাঝি
কোথা তুমি যাও?
তোমার তরীতে
আমায় নিয়া যাও।
আমার গাঁওয়ে
গেলে মাঝি,
মন জুড়াবে তোমার
শত বার দেখিবে তুমি
অপরূপ লীলাভূমি।
ও মাঝি বকুনি দিবে
ম-বাবা যদি হয় দেরি,
তোমার তরীতে পার করে দাও
বিনিময়ে যত নাও পয়সাকড়ি।
ও মাঝি লুকিয়ে যাচ্ছে
সূর্যেরই কিরণ,
একটু পরে চাঁদের আলোয়
আলোকিত হবে ভুবন।
সন্ধা আকাশের শুকতারা
আকাশে হবে জড়ো
ও ঘাটের মাঝি,
এবার তরী তুমি ছাড়ো।
দেখতে দেখতে মন জুড়াবে
চল যদি আমার গাঁও,
ও ঘাটের মাঝি –
আমায় তুলে নাও।

সম্পর্কিত পোস্ট

যদি পাশে থাকো

যদি পাশে থাকো

তাসফিয়া শারমিন ** আজকের সকালটা অন্য রকম। সাত সকালে আম্মু বকা দিলো। মানুষের ঘুম একটু দেরিতে ভাঙতেই পারে। তাই বলে এত রাগার কী আছে ?একেবারে যে দোষ আমারও তাও নয়। মানুষ ঘুম থেকে উঠে ফোনে বা দেওয়াল ঘড়িতে সময় দেখে। কিন্তু আমি উঠি জানালার পর্দা সরিয়ে বাইরের আলো দেখে।কে জানে...

কুড়িয়ে পাওয়া রত্ন

কুড়িয়ে পাওয়া রত্ন

অনন্যা অনু 'আমিনা বেগম' মেমোরিয়াল এতিমখানার গেট খুলে ভেতরে ঢুকতেই ওমরের বুকটা ধুক ধুক করতে শুরু করে। ওমর ধীর গতিতে ভেতরে প্রবেশ করে। চারদিকে তখন সবেমাত্র ভোরের আলো ফুটতে শুরু করেছে। ওমর গত রাতের ফ্লাইটে আমেরিকা থেকে এসেছে। সে এসেই সোজা আমিনা বেগম মেমোরিয়াল এতিমখানায়...

দাদাভাইকে চিঠি

দাদাভাইকে চিঠি

প্রিয় দাদাভাই, শুরুতে তোকে শরতের শিউলি ফুলের নরম নরম ভালোবাসা। কেমন আছিস দাদাভাই? জানি তুই ভালো নেই, তবুও দাঁতগুলো বের করে বলবি ভালো আছি রে পাগলী! দাদাভাই তুই কেন মিথ্যা ভালো থাকার কথা লেখিস প্রতিবার চিঠিতে? তুই কি মনে করিস আমি তোর মিথ্যা হাসি বুঝি না? তুই ভুলে গেছিস,...

১১ Comments

  1. Halima tus sadia

    চমৎকার ছড়া।পড়ে ভালো লাগল।
    ছড়ায় ফুটে উঠেছে একজন যাত্রীকে তরী দিয়ে নৌকা পাড় করানোর দৃশ্য।এ দৃশ্যটা সত্যিই সুন্দর।
    গ্রামের সৌন্দর্যই তো প্রকৃত সৌন্দর্য।নদী,গাছপালা,চিরসবুজের সমারোহ একমাত্র গ্রামেই।
    আর নদী পাড় হওয়া দৃশ্যটাতো আরও দারুণ।
    মাঝিরা সবসময়ই অনেক যাত্রী নিয়ে নদী পাড়ি দেয়।
    একজন নিয়ে খুব কমই যায়।
    সূর্যের আলো যখন অস্তমিত হয় তখন গ্রামে সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসে। সন্ধ্যার দৃশ্যটা গ্রামে সত্যিই অনেক সুন্দর।
    ঠান্ডা বাতাস প্রবাহিত হয়।
    গ্রামের এ অপরুপ লীলাভূমি শতবার দেখতে মন চায়।
    বানানেও ভুল নেই
    তবে ম-বা—-এটা মা-বাবা হবে
    সন্ধা–সন্ধ্যা
    শুভ কামনা রইলো।

    Reply
    • সাইফুল

      অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে ♥ অনাকাঙ্ক্ষিত ভুলের জন্য দুঃখিত।

      Reply
  2. আফরোজা আক্তার ইতি

    ছড়াটা খুবই সুন্দর। কবি খুব সুন্দরভাবে বাংলার সৌন্দর্যকে তার কবিতায় ফুটিয়ে তুলেছেন। একদিকে বাড়ি ফেরার তাড়া, বাবা-মায়ের বকুনির ভয় আর অন্যদিকে সূর্যাস্তের এক বর্ণনা ছড়াটিকে অনন্য করেছে। ভালো লাগল পড়ে। কবিতায় ছন্দমিলও খুব ভালো ছিল।
    ম-বাবা- মা-বাবা।
    সন্ধা- সন্ধ্যা।
    শুভ কামনা।

    Reply
    • সাইফুল

      অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে ♥ অনাকাঙ্ক্ষিত ভুলের জন্য দুঃখিত।

      Reply
  3. মুতাহেরা ইসলাম

    বাড়ি ফিরা যাত্রী আকুতি, মিনতি, কথোপকথন, ছড়ার মাঝে অপার সুন্দর্যে হারিয়ে গিয়েছলাম, ভালো লাগলো, শুভকামনা রইল।

    Reply
    • সাইফুল

      ধন্যবাদ আপনাকে ♥

      Reply
  4. Tasnim Rime

    একদিকে সন্ধ্যা ঘনিয়ে রাত নামার দৃশ্যের বর্ণনা অার অন্যদিকে দেরি করে বাড়ি ফিরলে মায়ের বকুনি খাওয়ার ভয়ে নদী পার হওয়ার তাড়া সব মিলিয়ে সুন্দর অাবহ্ সৃষ্টি হয়েছে ছন্দ- ছড়ায়।
    ম-বাবা→ মা-বাবা
    সন্ধা- সন্ধ্যা
    শব্দ দুইটা ভুল অাছে।

    Reply
    • সাইফুল

      অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে ♥ অনাকাঙ্ক্ষিত ভুলের জন্য দুঃখিত।

      Reply
  5. অদৃশ্য তারা

    চির সবুজের দৃশ্য বরাবরি মন ছুঁয়ে যায়, নদীর ধারে সবুজের সমহার ছুঁয়ে যায় অজান্তে অবচেতন মনকে। কবিতার কথকের আকুতি, নদী পারাপারের মিনতি, বাংলার অপরূপ দৃশ্যের প্রতিচ্ছবি দুলে যায় মন। কবিতার জয় হোক, শুভকামনা

    Reply
  6. Rifat

    ম-বাবা — মা-বাবা
    সন্ধা — সন্ধ্যা
    নিজের গ্রামের সৌঁন্দর্যকে ছড়ার মাধ্যেম খুব সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন।
    কিন্তু মাঝে কিছু জায়গায় ছন্দমিল ছিল না।
    শুভ কামনা।

    Reply
  7. shahrulislamsayem@gmail.com

    বাহ, খুব ভালো লেগেছে, সাধারন নদীর পরিবেশ নিয়ে বা মাঝি নিয়ে এরকম ছন্দের ছড়া খুব কমই দেখেছি, সেই দিক থেকে খুব ভালো ছড়া

    Reply

Submit a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *