ওপারের ডাক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৮
লেখকঃ

 25 বার দেখা হয়েছে

এই লেখক এর আরও লেখা পড়ুনঃ

ওপারের ডাক

          জাহিদুল ইসলাম
হিংসের তোপানলে
                       জ্বলে পুড়ে মরিস না,
জীবন থাকতে তুই
                       রেষারেষি  করিস না।
হৃদয়ের মাঝে রাখ
                        খোদারই ভয় সব,
ওইখানে বসে আছে
                        সকলের দাতা রব।
যার কাছে নেই লাজ
                        সে ছাড়বে পাপ কাজ?
বয়স হলে অনেক
                        শরীরে পড়বে ভাজ।
উদয় হলেও বুঝ
                        বয়সের শেষদিকে,
তখন শুধালে কেউ
                        সাড়া দেবে না তো ডাকে।
থাকতে জান তোমার
                        গড়ে নাও স্ব-জীবন,
পাবেনা সময় আর
                        স্বর্গ অতি মূল্যবান।
স্বর্গ সুখ যদি চাও
                        যপো বিধাতার নাম,
গাইলে খোদার গান
                        হবে তোমার সুনাম।
খোদার বিধান মেনে
                        স্বর্গসুখ আনো কিনে;
বিধির জান্নাত তুমি
                        পাবে না নামাজ বিনে।
ওপারের ডাক এলে
                        থাকবেনা তো উপায়,
সর্বস্ব ভুলে হিংসা-
                        বিভেদ ছাড়ো সবাই।

সম্পর্কিত পোস্ট

তুলসী বনের বাঘ

তুলসী বনের বাঘ --আল-মুনতাসির। চিনলে নাকো তাকে সে যে তুলসী বনের বাঘ ! ছদ্মবেশে ছড়িয়ে দিলো বিষম বিষের নাগ। ইচ্ছে করে কামড় খেলে, ভরলে হৃদয় বিষের নীলে কী করে আর দেখবে প্রিয় কৃষ্ণচুড়ার বাগ ? চিনলে নাকো তাকে সে যে তুলসী বনের বাঘ ! চোখে তোমার বিষের তেজে পর্দা এলো নেমে, জগত...

ভালোবাসা রং বদলায়

: ভালোবাসা রং বদলায় লেখা: অদ্রিতা জান্নাত ছোট মেয়েটা খুব করে কেঁদে কেঁদে অনুরোধ করেছিল আমি যেন একটি হলেও তার কাছ থেকে ফুল কিনে নেই, ঠিক যতবার আমি তাকে ঠেলে দূরে সরিয়ে দিচ্ছিলাম সে যেন ঠিক ততটাই আমার পিছু ছুটতে লাগল। আচ্ছা, এই যে শিশুটা যে কিছু টাকার বিনিময়ে আমাকে...

গোপন আর্তনাদ

কবিতা - গোপন আর্তনাদ #জয়নাল_আবেদীন মনে পড়ে কাজল চোখে মুগ্ধ করে রাখতে আমায়। কখনো নির্মল হাসিতে ভরিয়ে দিতে চারপাশ। ভুলে গেছো সেদিন ঘাটের পাশে নূপুর পায়ে নৃত্যের তালে এসেছিলে। লাল শাড়িটা এলোমেলো জড়িয়ে, মুখটা কেমন গম্ভীর ও করুণ দেখেছিলাম। বারবার আকাশে মেঘের গর্জন, বৃষ্টির...

৭ Comments

  1. আফরোজা আক্তার ইতি

    খুবই সুন্দর কবিতা। লেখার ধাঁচ সুন্দর। শব্দচয়ন আর ছন্দমিলও বেশ ভালো। কবিতার মূলবার্তাও অত্যন্ত সুন্দর ও শিক্ষণীয়। কখন আমাদের ওপারে চলে যাওয়ার ডাক আসে তার ঠিক নেই। তাই সময় থাকতে এখনই আমাদের উচিৎ বেহেশতে যাওয়ার ব্যবস্থা করা, আল্লাহর ইবাদাত করা।
    খুব ভালো লিখেছেন। বানানে কোন ভুল আমার নজরে পড়ে নি।
    ভাজ- ভাঁজ।

    Reply
  2. Rajib Molla

    খুব উপদেশ ও অনুপ্রেরণামমূলক কবিতা। তবে যপোর জায়গায় জপো হবে বোধহয়।

    Reply
  3. Halima tus sadia

    আমরা হিংসের তোপানলে জ্বলে পুড়ে মরি।একে অপরের রেষারেষি করি।কারও ভালো দেখতে পারি না।সময় থাকতে বুঝি না স্বর্গ কত মূল্যবান।নামাজ বিনে সেই স্বর্গের সুখ কখনোই লাভ করা যায় না।
    হিংসা,অহংবার ভুলে আমাদের সবার উচিৎ আল্লাহর ইবাদত করা।

    খুব সুন্দর একটি কবিতা।মনোমুগ্ধকর হয়ে গেলাম।
    শুভ কামনা রইলো।

    Reply
  4. Halima tus sadia

    আমরা হিংসের তোপানলে জ্বলে পুড়ে মরি।একে অপরের রেষারেষি করি।কারও ভালো দেখতে পারি না।সময় থাকতে বুঝি না স্বর্গ কত মূল্যবান।নামাজ বিনে সেই স্বর্গের সুখ কখনোই লাভ করা যায় না।
    হিংসা,অহংকার ভুলে আমাদের সবার উচিৎ আল্লাহর ইবাদত করা।

    খুব সুন্দর একটি কবিতা।মনোমুগ্ধকর হয়ে গেলাম।
    শুভ কামনা রইলো।

    Reply
  5. Jahidul Islam

    ভালোবাসা নিরন্তর আপু। এরকমভাবে উৎসাহ পেলেই কবিরা জেগে উঠবে।

    Reply
  6. Jahidul Islam

    ভালোবাসা নিরন্তর

    Reply
  7. মাহফুজা সালওয়া

    ভাবানুবাদ দারুণ, তবে উপস্থাপনভঙ্গী ভালো লাগে নি।
    কবিতার প্রথম প্রয়োজন শব্দের সমৃদ্ধতা।
    এজন্য আগে আপনাকে বেশি বেশি কবিতা পড়তে হবে, তবেই কবির রচনায় পক্বতা আসবে।।
    দ্বিতীয়ত,বেশি বেশি কবিতা লেখার চর্চা করতে হবে।
    শুভকামনা।

    Reply

Submit a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *