নিষ্পাপ শিশু
প্রকাশিত: নভেম্বর ১২, ২০১৮
লেখকঃ

 233 বার দেখা হয়েছে

এই লেখক এর আরও লেখা পড়ুনঃ

লিখাঃফৌজিয়া ফাহমিদা অন্তর

নিষ্পাপ হয়ে জন্ম নিয়ে
পৃথিবীতে আসে যে শিশু,
বয়সের টানে পাপের তাপে পিষ্ট
হয় তা কিছু।
লোভ,লালসা,কিছু আশা,ভরসা
টেনে আনে জীবন আঁধারে,
জন্মের পর একটু একটু বয়স
যখনই তার বাড়ে।
নিষ্পাপ শিশু পাপের তাপে
ঝলসে যায় অগোচরে,
নিজেও বুঝেনা যে দু’হাত দিয়ে
পাপ টানছে তারে।
একটু আশা পূরণ করতে
লোভের হয় জয়,
সেই নিষ্পাপ শিশুটিই এক কালে
হারায় তার ব্যক্তিত্বের পরিচয়।
আঁধার ঘেরা আলো ছাড়া
অমাবস্যার রাতে,
জীবনে তার নেমে আসে আঁধার
অপরাধ নিয়ে হাতে।
বেড়ে ওঠার বয়স যে তার
বড্ড অবহেলায়,
যেখানে থাকার ছিল হাসি,
আনন্দ,উল্লাস ছেলেবেলায়।
সে যে রাস্তার ছেলে পথ শিশু
অবশেষে পরিচয় পায় না খুঁজে,
ন্যায়,অন্যায়,ভালো,মন্দ তার
বেলায় কি সাজে?
পায় না সে মায়ের আদর
পিতৃস্নেহের মায়া,
নিজের কাছে অচেনা লাগে
নিজেরই দেহের ছায়া।
আত্মঘাতি,অপরাধী,জঘন্য এই
সমাজে,
নিষ্পাপ শিশু পাপিষ্ট হয়
নিয়মের তাগিদে।

সম্পর্কিত পোস্ট

তুলসী বনের বাঘ

তুলসী বনের বাঘ --আল-মুনতাসির। চিনলে নাকো তাকে সে যে তুলসী বনের বাঘ ! ছদ্মবেশে ছড়িয়ে দিলো বিষম বিষের নাগ। ইচ্ছে করে কামড় খেলে, ভরলে হৃদয় বিষের নীলে কী করে আর দেখবে প্রিয় কৃষ্ণচুড়ার বাগ ? চিনলে নাকো তাকে সে যে তুলসী বনের বাঘ ! চোখে তোমার বিষের তেজে পর্দা এলো নেমে, জগত...

ভালোবাসা রং বদলায়

: ভালোবাসা রং বদলায় লেখা: অদ্রিতা জান্নাত ছোট মেয়েটা খুব করে কেঁদে কেঁদে অনুরোধ করেছিল আমি যেন একটি হলেও তার কাছ থেকে ফুল কিনে নেই, ঠিক যতবার আমি তাকে ঠেলে দূরে সরিয়ে দিচ্ছিলাম সে যেন ঠিক ততটাই আমার পিছু ছুটতে লাগল। আচ্ছা, এই যে শিশুটা যে কিছু টাকার বিনিময়ে আমাকে...

গোপন আর্তনাদ

কবিতা - গোপন আর্তনাদ #জয়নাল_আবেদীন মনে পড়ে কাজল চোখে মুগ্ধ করে রাখতে আমায়। কখনো নির্মল হাসিতে ভরিয়ে দিতে চারপাশ। ভুলে গেছো সেদিন ঘাটের পাশে নূপুর পায়ে নৃত্যের তালে এসেছিলে। লাল শাড়িটা এলোমেলো জড়িয়ে, মুখটা কেমন গম্ভীর ও করুণ দেখেছিলাম। বারবার আকাশে মেঘের গর্জন, বৃষ্টির...

৫ Comments

  1. Halima tus sadia

    নিষ্পাপ শিশু পাপিষ্ট হয় নিয়মের তাগিদে।
    কথাটা চিরন্তন সত্য।
    ভালো লাগলো।
    সুন্দর লিখেছেন।নিষ্পাপ হয়ে জন্মেও বাস্তবতার কারণে পাপী হয়ে যাই।
    শুভ কামনা রইলো।

    Reply
  2. সুস্মিতা শশী

    লিখাঃফৌজিয়া
    লিখা: দিবেন। কেননা ঃ একটি বাংলা বর্ণ
    কোনো শিশুই পাপী হয়ে জন্মে না। সমাজ বাধ্য করে পাপী হতে। চমৎকার কবিতা। বানানেও ভুল নেই।

    Reply
  3. Nafis Intehab Nazmul

    সুন্দর একটা বাস্তবতা ফুটে এসেছে কবিতায়। যেখানে একজন পথ শিশু নিষ্পাপ হয়ে জন্ম নিয়েও ধীরে ধীরে কিভাবে পাপিষ্ট হয়ে নিজের পরিচয় হারিয়ে ফেলে, পাপে ডুবিয়ে ফেলে নিজেকে, সেটা উঠে এসেছে। বোঝে না কোনটা ভালো কোনটা মন্দ।
    তারা বড় হয় অযত্নে অবহেলায়, মা বাবার আদর ভালোবাসাহীন।
    শেষ লাইন টা স্পষ্ট সত্য।

    Reply
  4. অচেনা আমি

    আসসালামু আলাইকুম। কবিতাটা মোটামুটি ভালো লেগেছে। খুব গুছিয়ে লেখার চেষ্টা ছিল অনেকটা। সামান্য কিছু ভুল রয়েছে।
    লেখার শুরুতেই ভুল
    লিখাঃ – লিখা :
    বুঝেনা – বুঝে না
    ছেলেবেলায় – ছেলে বেলায়
    ন্যায়,অন্যায়,ভালো,মন্দ – ন্যায়-অন্যায়, ভালো-মন্দ

    আগামীর জন্য অনেক অনেক শুভ কামনা।

    Reply
  5. Md Rahim Miah

    লিখাঃ-লিখা:(বা লেখা দিলে সুন্দর দেখায় আর ঃ এটা বাংলা বর্ণ)
    বুঝেনা-বুঝে না
    ওঠার-উঠার
    ছেলেবেলায়-ছেলে বেলায়(যেহেতু দুইটা শব্দ তাই আলেদা বসবে)
    ন্যায়, অন্যায়, ভালো, মন্দ -ন্যায়-অন্যায়, ভালো- মন্দ
    যাইহোক কবিতাটা ভালো লিখেছেন। আসলে সমাজই শিশুকে পাপী বানায়। কারণ কোনো শিশু পাপী হয়ে জন্মগ্রহণ করে না। মানুষে অবহেলা আর বাস্তবতা নির্মম অত্যাচার তাকে এই পথে আনতে বাধ্য করে। শুভ কামনা রইল

    Reply

Submit a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *