স্বামীর ভালোবাসা
প্রকাশিত: জুন ১৭, ২০১৮
লেখকঃ vickycherry05

 253 বার দেখা হয়েছে

এই লেখক এর আরও লেখা পড়ুনঃ vickycherry05

লেখিকাঃ নূরানা হক
(জুন – ২০১৮)
……………

আমার আসাটা মনে হয় উচিৎ হয়নি। কিন্তু না এসেও উপায় নেই। এক প্রকার জোর করে নিয়েই এসেছে রিফাত। আমি না আসলে রিফাত মনক্ষুন্ন হত। ভীষণ ব্যথা পেত, কষ্ট পেত। কিন্তু আসাতে রিফাত যে এমন পাগলামী করবে তা কে জানে? যদি আগে জানতাম তা হলে আসতাম না। অবশ্য রিফাত এমন করাতে ভালই হয়েছে। আমাদের ভালোবাসা আরও গাঢ় হলো, আরও দৃঢ় হলো। লোকেও জানল ভালোবাসা পুতুল খেলা নয়, ভালোবাসা কোন ছলনার বস্তু নয়, ভালোবাসা অভিনয় করার বিষয় নয়।

সিনেমার নাম স্বামীর ভালোবাসা। দেশের বিখ্যাত পরিচালক প্রযোজক এই ছবির কাজ হাতে নিয়েছে। হাজার হাজার দর্শক মঞ্চের দিকে অধিক আগ্রহ নিয়ে তাকিয়ে আছে। মঞ্চের পর্দা সরানো হচ্ছে না। যদিও বারবার ঘোষণা করা হচ্ছে এক্ষুণি কাজ শুরু হবে। অতঃপর অপেক্ষার প্রহর শেষ হলো। ধীরে ধীরে পর্দা সরানো হচ্ছে। দর্শকের মাঝে তালির জোয়ার উঠছে। রিফাতের এটা প্রথম ছবি। এই ছবির নায়িকাও নতুন। নায়িকা ও নায়কের উভয়ের এটাই প্রথম ছবি। নায়িকাকে দেখে আমার মনে মনে ভয়ও হচ্ছিল। রিফাত যদি নায়িকাকে পেয়ে আমাকে ছেড়ে চলে যায়। যদি আমাকে নায়িকার পাশে দাড় করানো হয় তাহলে সবাই আমাকে থু থু দিবে। তবে কী আমি রিফাতকে হারাতে বসেছি। আমার রিফাত আমার থাকবে তো। আমাকে ছেড়ে চলে যাবে না তো। এ রকম বিভিন্ন দুঃশ্চিন্তা এসে আমাকে গ্রাস করতে লাগল। শুটিং এর কাজ শুরুর পথে। ক্যামেরাম্যান প্রস্তুত। পরিচালক সাহেব রিফাতকে সুন্দর করে আর্ট বুঝিয়ে দিচ্ছেন। এবার শর্ট নেয়ার জন্য সবাই প্রস্তুত হয়ে গেল। পরিচালক, রিফাতকে স্ক্রিপ্ট বুঝিয়ে দিচ্ছেন। পরিচালক যেমন করে বলবেন রিফাতকেও তেমন করে বলতে হবে। পরিচালক বললেন, আমি তোমাকে ভালবাসি। রিফাত নায়িকার উদ্দেশ্যে ঠিক এই কথাটি বলবে। কিন্তু রিফাত নিরব। পরিচালক আবার বললেন, আমি তোমাকে ভালবাসি। রিফাত তখনও নিরব। আমার মনে হচ্ছে রিফাত ভয় পেয়েছে কিন্তু ও ভয় পাবে কেন? পরিচালক আবারও নির্দেশ দিলেন রিফাত তখনও নিরব। আমার ভয় হতে লাগল, রিফাতের বাকশক্তি লোপ পেল নাকি। পরিচালক রিফাতের কাছে গিয়ে বললেন, কী হলো রিফাত কথা বলছনা কেন? রিফাত বলল, আমি ওকে ভালবাসি না, তবে ওকে ভালোবাসি বলব কেন?
পরিচালক বললেন, তুমিতো আর সত্যি বলছ না। অভিনয় করছ। রিফাত বলে, না আমি ভালোবাসা নিয়ে অভিনয় করতে পারবনা। আমার স্ত্রী আছে, আমি তাকে ভালোবাসি, তাকে ছাড়া অন্য কাউকে ভালোবাসার কথা বলতে পারি না। পরিচালক একটু ঘাবরে গেলেন। বললেন, শুধু একবার বল, আমরা একবারে ফাইনাল করে নিব। রিফাত ছেলে মানুষের মত বললে, সেটা আমার দ্বারা সম্ভব না, আমার মিতু কষ্ট পাবে। পরিচালক হাল ছাড়লেন।
আমি দর্শক গ্যালারি থেকে চিৎকার করে বললাম, বল রিফাত বল আমি তোমাকে ভালোবাসি। রিফাত ওখান থেকে চিৎকার করে বলল, হ্যাঁ আমি শুধু তোমাকেই ভালোবাসি মিতু। তোমাকে ছাড়া অন্য কারও সাথে অভিনয়ের ছলেও ভালোবাসার কথা বলতে পারিনা। শুটিং দেখতে আসা হাজার হাজার দর্শক তালির জোয়ার তুলল। সব দর্শক সমস্বরে বলল, হ্যাঁ রিফাত তুমি ঠিক কথাই বলেছ। ভালোবাসা পুতুল খেলা নয়, ভালোবাসা বাজারের পন্য নয়, ভালোবাসা ব্যবসার বস্তু নয়, ভালোবাসা যাকে তাকে বলার জিনিষ নয়, পৃথিবীতে ভালোবাসার কোন বিকল্প নেই এবং থাকতে পারেনা। সেই ভালোবাসা নিয়ে অভিনয় চলে না। রিফাতের চোখ ছলছল করছে। রিফাতের চোখের দিকে তাকিয়ে আমার চোখেও পানি চলে আসে। আমার দু’চোখ বেয়ে গড়িয়ে পড়ে আনন্দের অশ্রুজল।

সম্পর্কিত পোস্ট

পূনর্জন্ম

জুয়াইরিয়া জেসমিন অর্পি . কলেজ থেকে ফিরেই পিঠের ব্যাগটা বিছানায় ছুড়ে ফেললো অন্বেষা। তারপর পড়ার টেবিলের কাছে গিয়ে চেয়ার টেনে নিয়ে ধপ করে বসে দুই হাত দিয়ে মাথাটা চেপে ধরলো।প্রচণ্ড মেজাজ খারাপ ওর। আজ ওদের সেমিস্টার ফাইনালের রেজাল্ট দিয়েছে। একদমই ভালো করেনি সে। যদিও শুরু...

অনুভূতি

অনুভূতি

লেখা: মুন্নি রহমান চারদিকে ফজরের আজানের সুমধুর ধ্বনি ভেসে আসছে। বাইরে এখনো আবছা অন্ধকার। তড়িঘড়ি করে বিছানা ছাড়লো মালা। ঘরের কাজ সেরে বের হতে হবে ফুল কিনতে। তাড়াতাড়ি না গেলে ভালো ফুল পাওয়া যায় না আর ফুল তরতাজা না হলে কেউ কিনতে চায় না। মাথার ওপরে তপ্ত রোদ যেন...

অসাধারণ বাবা

অসাধারণ বাবা

লেখক:সাজেদ আল শাফি বাসায় আসলাম প্রায় চার মাস পর। বাবা অসুস্থ খুব।তা নাহলে হয়তো আরও পরে আসতে হতো।গাড়ি ভাড়া লাগে ছয়শো পঁচিশ টাকা।এই টাকাটা রুমমেটের কাছ থেকে ধার নিয়েছি।তার কাছে এই পর্যন্ত দশ হাজার টাকা ঋণ হয়েছে।বলি চাকরি হলেই দিয়ে দিব। পড়াশোনা শেষ করে দুই বছর...

০ Comments

Submit a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *