খোকার স্বপ্ন
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৮
লেখকঃ

 32 বার দেখা হয়েছে

এই লেখক এর আরও লেখা পড়ুনঃ
নূর এ জাহান বিলকিছ
——————–

 হাসলে তুমি?

কি বিদ্রুপ তোমার এ চাহনি!
.
তোমারই মতো আছে খোকা আমার
ভেবেছিল হবে মস্ত বড় অফিসার,
নাম ছিল তার সেরা ছাত্রের তালিকায়
স্বপ্ন ছিল পাকা দালানে রাখিবে আমায়।
বড় হয়ে আমার সব দুঃখ-কষ্ট ঘোচাতে
ঘুরিয়া ফিরিয়াছে দিন রাত্রি টিউশনির দুয়ারে।
হঠাৎ
রক্ত কণিকায় অযাচিত লিকোমিয়ার আগমনে
আমার ছেলের স্বপ্ন গুলো মুখ থুবড়ে কাঁদছে।
সহযোগিতার আশায় আজি তোমার ধারে
দু হাত পেতে এসেছি ছেলের স্বপ্নাংশ কুড়িয়ে নিতে।
সব টা না শুনেই হেসে দিলে তুমি(?)
অথচ
যে টাকায় খেতে চা অথবা কফি
সে টাকায় হয়তো বেঁচে যাবে
আমার খোকার জীবন হাসি।
মিথ্যে ভেবে হাসলে তুমি?
আমার কষ্ট টা তোমরা বুঝো নি
বুঝি আমি আর আমার যাদু মনি,
যখন হাসপাতালের বেডে পিতা হয়ে
একমাত্র ছেলের মৃত্যুর প্রহর গুনি।

 

সম্পর্কিত পোস্ট

তুলসী বনের বাঘ

তুলসী বনের বাঘ --আল-মুনতাসির। চিনলে নাকো তাকে সে যে তুলসী বনের বাঘ ! ছদ্মবেশে ছড়িয়ে দিলো বিষম বিষের নাগ। ইচ্ছে করে কামড় খেলে, ভরলে হৃদয় বিষের নীলে কী করে আর দেখবে প্রিয় কৃষ্ণচুড়ার বাগ ? চিনলে নাকো তাকে সে যে তুলসী বনের বাঘ ! চোখে তোমার বিষের তেজে পর্দা এলো নেমে, জগত...

ভালোবাসা রং বদলায়

: ভালোবাসা রং বদলায় লেখা: অদ্রিতা জান্নাত ছোট মেয়েটা খুব করে কেঁদে কেঁদে অনুরোধ করেছিল আমি যেন একটি হলেও তার কাছ থেকে ফুল কিনে নেই, ঠিক যতবার আমি তাকে ঠেলে দূরে সরিয়ে দিচ্ছিলাম সে যেন ঠিক ততটাই আমার পিছু ছুটতে লাগল। আচ্ছা, এই যে শিশুটা যে কিছু টাকার বিনিময়ে আমাকে...

গোপন আর্তনাদ

কবিতা - গোপন আর্তনাদ #জয়নাল_আবেদীন মনে পড়ে কাজল চোখে মুগ্ধ করে রাখতে আমায়। কখনো নির্মল হাসিতে ভরিয়ে দিতে চারপাশ। ভুলে গেছো সেদিন ঘাটের পাশে নূপুর পায়ে নৃত্যের তালে এসেছিলে। লাল শাড়িটা এলোমেলো জড়িয়ে, মুখটা কেমন গম্ভীর ও করুণ দেখেছিলাম। বারবার আকাশে মেঘের গর্জন, বৃষ্টির...

৫ Comments

  1. Nurul

    very important subjectively matter. that’s reality

    Reply
  2. বুনোহাঁস

    হৃদয় বিদারক একটি কবিতা। অন্তর গহীনে হানা দিবে মুহূর্তেই।
    শব্দটি লিউকেমিয়া হবে।
    শুভ কামনা রইলো।

    Reply
  3. আফরোজা আক্তার ইতি

    মনকে নাড়া দেয়ার মত, ভাবিয়ে তোলার মত একটি কবিতা। শেষের চরণ পাঠকের মনকে ক্ষণিকের মধ্যে দুঃখ ভারাক্রান্ত করে দেয়ার জন্য যথেষ্ট। সুন্দর হয়েছে।
    দু হাত- দু’হাত।

    Reply
  4. Halima tus sadia

    হ্নদয় বিদারক কবিতা।খুবই খারাপ লাগলো।
    মানুষ কতো রকমের স্বপ্ন দেখে।কিন্তু সেই স্বপ্ন মুহূর্তেই ভেঙ্গে যায়।মরণব্যাধি নামক কতো রকমের অসুখ আছে।হঠাৎ করেই মানুষের জীবনে দেখা দিলে।
    অকালেই ঝরে যায় ভালো ছাত্রদের জীবন।

    আর হাসপাতালের বেডে শুয়ে সন্তানের মৃত্যুর প্রহর গুনা অনেক কঠিন।তবুও বাস্তবে অনেক পিতা সেই প্রহর গুনে যায়।নিয়তি বড়ই কঠিন।

    শেষের লাইনটা ভালো লেগেছে।
    শুভ কামনা।

    Reply
  5. মাহফুজা সালওয়া

    বেশ সুন্দর, হৃদয়বিদারক একটা থিম নিয়ে লিখেছেন।
    তবে কবির লেখার হাত নিতান্তই কাঁচা হওয়ায় কিনা জানা নেই,কবিতা আবৃত্তি করে তৃপ্তি পেলাম না।
    শব্দচয়নে আরও যত্নশীল হওয়া প্রয়োজন।

    পরামর্শ রইলো, সময় নিয়ে, ধীরস্থিরভাবে কবিতা লিখবেন। তবেই তা পাঠক সমাদর অর্জন করবে।
    শুভকামনা।

    Reply

Submit a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *